সুজিতে পোকা ধরে? বেসন বা ময়দা তেতো হয়ে যায়? লবণ বা চিনি পানি পানি হয়ে যায়? দেখুন এক গাদা টিপস

আপনাদের জন্য আমাদের এখনকার আয়োজনে রয়েছে কয়েকটি অতি গুরুত্বপূর্ণ টিপস। এখন গরমের দিন। এই সময় রান্না করা খাবার ফ্রিজে রাখলেও কেমন যেন গন্ধ হয়ে যায়। অন্যদিকে বৃষ্টির দিন শুরু হলেই পোকা ধরে ডাল, সুজি কিংবা চালে, আবার রোজার মৌসুমে বেসন বা ময়দার তেতো হয়ে যাওয়া তো আছেই। দ্রুত পচে যায় পেঁয়াজ, রসুন, আদা। বর্ষা এলেই বিস্কিট যায় নেতিয়ে, চিনি বা লবণ গলে পানি পানি হয়। এসব সমস্যা থেকে মুক্তি চাই? তাহলে জেনে নিন এই ১০টি অসাধারণ টিপস।

টিপস:১) সাধারণত মুগের ডাল ও সুজিতে খুব দ্রুত পোকা ধরে যায়। এই পোকার হাত থেকে মুক্তি পেটে মুগের ডাল বা সুজি হালকা করে ভেজে ঠাণ্ডা করে নিন। তারপর কৌটার মাঝে ভরে রাখুন। সুজি চাইলে ফ্রিজেও রাখতে পারেন, পোকা ধরবে না।

২) চাল, মসুরির ডালে পোকা হওয়া ঠেকাতে বেশ কিছু আসল তেজপাতা (বাজারে নকল তেজপাতাও বিক্রি হয়) চাল-ডালের কৌটার মাঝে ভালো করে মিশিয়ে রাখুন।

৩) বুটের ডালে পোকা হওয়া ঠেকাতে ফ্রিজে রাখতে পারেন। এছাড়াও কৌটায় তেজপাতা দিয়ে রাখতে পারেন। তবে বুটের ডাল মাঝে মাঝেই বের করে রোদে দেবেন।

৪) বেসন বা ময়দা তেতো হয়ে যায়? ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন, তেতো হবে না।

৫) বিস্কিট কৌটায় রাখার সময় ভেতরে এক টুকরো ব্লটিং পেপার দিয়ে দিন। এটা না থাকলে পাতলা কাপড়ে কিছু চাল পুঁটুলি বেঁধে বিস্কিটের সাথে রাখুন। সহজে নেতিয়ে যাবে না।

৬) লবণ বা চিনির পানি পানি হওয়া ঠেকাতে চালের পুঁটুলি রাখুন। আর লবণ দানীতে লবণ ঝরঝরে রাখতে কয়েক দানা চাল ফেলে দিন।,

৭) রান্না করা খাবার ফ্রিজে রাখলেও ২/১ দিনে গন্ধ হয়ে যায়? রোজ একবার বের করে ভালো মত চুলায় জ্বাল দেবেন। তারপর ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে রাখবেন। বেশ কয়েকদিন রেখে খাওয়া যাবে।

৮) আদাকে পচনের হাত থেকে বাঁচাতে ফ্রিজে রেখে দিন। একদম সতেজ থাকবে।

৯) পেঁয়াজকে সংরক্ষণ করতে চাইলে ভালো করে বেছে নিন। তারপর রোদে শুকিয়ে ঝরঝরে করে ফেলুন। তারপর একটি ঝুড়িতে খবরের কাগজ বিছিয়ে তাঁর মাঝে পেঁয়াজ রেখে দিন। কোন সবজি বা ফলের সাথে রাখবেন না।

১০) রসুনকে পেঁয়াজ ও আদার সাথে রাখার ভুল সকলেই করেন। এতে রসুন দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়। রসুনকে ঝেড়ে বেছে ঘণ্টা দুয়েক রোদে শুকিয়ে ঝুড়িতে ভরে রেখে দিন। এমনিতেই ভালো থাকবে।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন