চুল পড়া কমাবে, নতুন চুল গজাবে রসুনের তেলে, দেখুন ব্যবহার

চুল পড়ে যাচ্ছে? নতুন চুল গজায় না? তাহলে এই সমস্যার নাম হেয়ারফল। হেয়ারফল হলে ঝরে পড়া চুলের যায়গায় নতুন চুল গজায় না। তবে এই সমস্যার সমাধান হতে পারে রসুনের তেল। আজ দেখে নিন কিভাবে তৈরি করবেন রসুনের তেল। আর কিভাবে ব্যবহার করবেন চুলের যত্নে।

এই তেল ব্যবহার করার ফলে আপনার হেয়ারফল কমে যাবে, অর্থাৎ নতুন চুল গজাবে এবং চুল পড়া রোধ করবে। চুল হবে ঘন। এই তেলের রেগুলার ব্যবহার করার ফলে আপনার চুল পড়া সমস্যার সমাধান হবে। এই তেল পুরুষ কিংবা মহিলা উভয়ে ব্যবহার করতে পারবেন।

তাহলে আসুন দেখে নেই কিভাবে এই হোমমেড হেয়ার অয়েল তৈরি করবেন। এই তেল একবার তৈরি করে আপনি কয়েক মাস পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন। রসুনে প্রচুর পরিমানে সালফার থাকে এটা আমাদের চুলের জন্য খুব উপকারি। এতে এন্টি ফাঙ্গাল প্রোপার্টিজ থাকার কারনে মাথায় খুশকি দূর করতেও দারুন কাজ করে।

এই তেল বানাতে যে সকল উপকরণ লাগবে সব আপনার বাসাতেই আছে। বাইরে থেকে কিছু কিনে আনতে হবে না।

প্রথমে একটি বড় রসুন নিয়ে, তার ৮-১০টি কোয়া নিয়ে নিন। এবার এই কোয়া গুলো ভালো ভাবে ছিলে নিন। একটি বাটিতে কোয়া গুলো নিয়ে নিন। এবার আরেকটি স্টিলের বাটি নিয়ে তাতে ১/২ কাপ খাঁটি সরিষার তেল নিয়ে নিন। আপনি চাইলে নারিকেল তেল বা অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। এবার এই বাটি চুলাতে দিয়ে এই তেল হালকা গরম করুন, এবার তাতে দিয়ে দিন বেছে রাখা কোয়া গুলো। মনে রাখতে হবে চুলার আচ কমিয়ে গরম করতে হবে। না হলে রসুন পুড়ে যেতে পারে। এবং বার বার রসুন নাড়তে হবে যাতে করে পোড়া না লাগে। এতে দিয়ে দিন ১ টেবিল চামচ মেথি দানা। রসুন এর কোয়া হালকা ব্রাউন না হওয়া পর্যন্ত গরম করতে থাকুন। এবং কিছুক্ষন পরপর নাড়তে থাকুন। ব্রাউন হয়ে গেলে চুলা বন্ধ করে এভাবেই রেখে দিন ঠান্ডা হওয়ার জন্য।

এবার একটি ছাকনির সাহায্যে তেল ছেকে একটি কাচের বাটিতে নিয়ে নিন। এবং এই তেল আপনি বোতলে ভরে রেখে কয়েক মাস পর্যন্ত ব্যবহার করতে পারবেন।

রসুনের তেল মাথায় ব্যবহারের প্রনালী- এই তেল মাথায় মেখে ৫ মিনিট পর্যন্ত হালকা হাতে ম্যাসাজ করতে হবে। এভাবে ১ঘন্টা রেখে দিতে হবে। ১ঘন্টা পরে চুল ধয়ে ফেলুন বা ভালো শ্যাম্পু করে ফেলুন। আপনি চাইলে রাতে ঘুমানোর আগেও এই তেল ব্যবহার করতে পারেন। ভালো ফলাফল পেতে চাইলে এই তেল সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করতে পারেন।

চুলের যত্নে আরও কিছু রসুনের প্যাক

১। রসুনের প্যাক

একটি ডিমের সাদা অংশ ভাল করে ফেটে নিন এরসাথে এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল এবং এক টেবিল চামচ রসুনের রস মেশান। এবার প্যাকটি চুলে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগান। রসুনের সেলিনিয়াম ভিটামিন ই এবং ডিমের প্রোটিনের সাথে মিশে চুলের পড়া রোধ করে করে। নতুন চুল গোঝাতে সাহায্য করে। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। সপ্তাহে একবার এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। এটি নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে।

২। রসুন এবং তেল

তেল এবং রসুন উভয়ই সাহায্য করে নতুন চুল গজাতে । এমনকি মাথার তালুর ইনফেকশন এবং ব্যাকটেরিয়াও দূর করে দেয় রসুনের তেল। এক টেবিল চামচ রসুনের রসের সাথে আধা কাপ নারকেল তেল মিশিয়ে অল্প আঁচে জ্বাল দিন। কুসুম গরম হয়ে আসলে এটি মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগান। এক ঘন্টা বা তারচেয়ে বেশি সময় এটি চুলে রাখুন। তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

৩। রসুনের রস

রসুনের কয়েকটি কোয়া নিয়ে রস করে নিন। এটি সরাসরি মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগান। তবে এটি গোসলের আগে চুলে লাগিয়ে নিন। এটি মাথায় রেখে কিছুসময় অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এক্ষেত্রে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না যেন।

৪। কাঁচা রসুনের সিরাম

চুল পড়া রোধে রসুনের একটি পরীক্ষিত পদ্ধতি হল কাঁচা রসুনের সিরাম। রসুনের তেলের সাথে এক টেবিল চামচ কাঁচা রসুনের রস মিশিয়ে নিন। এবার একটি তুলোর বলে সেটি লাগিয়ে মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগান। কয়েক মিনিট মাথার তালু ম্যাসাজ করুন। ২০ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ভাল করে চুল ধুয়ে ফেলুন। ভাল ফল পাওয়ার জন্য এটি প্রতিরাতে ব্যবহার করুন।Using the new

৫। রসুন এবং অলিভ অয়েল

অলিভ অয়েলের বোতলে এক টুকরো রসুন দিয়ে দিন। এভাবে এক সপ্তাহ রাখুন। এরপর প্রতিদিন রাতে এই তেল চুলে ব্যবহার করুন। পরের দিন সকালে চুল শ্যাম্পু করে নিন।এটি ব্যবহারে কয়েক সপ্তাহের মাঝে পরিবর্তন দেখতে পাবেন।

৬। রসুনের কন্ডিশনার

প্রথমে রসুনের কোয়া রোদে শুকিয়ে নিন। তারপর এটি গুঁড়ো করে পাউডার তৈরি করুন। এবার কন্ডিশনার সাথে রসুনের পাউডার মিশিয়ে নিন। এটি চুলে কন্ডিশনার হিসেবে ব্যবহার করুন। আপনি চাইলে এতে রসুনের রসও মেশাতে পারেন। এটি চুল পড়া রোধ করতে সাহায্য করবে।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন