নিষিদ্ধ কাজের পাপ থেকে ক্ষমা লাভের দোয়া

মানুষ অনেক বিষয়ে আল্লাহ তাআলার কাছে দোয়া করে। এমন অনেক দোয়া করে যে কাজ করা বৈধ নয়। যেমন- কোনো জিনিস প্রাপ্তি লোভের জন্য দোয়া, মানুষের সঙ্গে প্রতারণার নিয়তে কোনো কাজ করার শুরুতে আল্লাহর সাহায্য চাওয়া ইত্যাদি। এ রমক কোনো অন্যায় করে ফেললে উক্ত দোয়ার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে ক্ষমা পার্থনা করা। যা তুলে ধরা হলো-

উচ্চারণ: রাব্বি ইন্নি আউজুবিকা আন্ আস্আলাকা মা-লাইসা লি বিহি ইলমুন; ওয়া ইল্লা তাগফিরলি ওয়া তারহামনি আকুম মিনাল খাসিরিন। (সুরা হুদ : আয়াত ৪৭)

অর্থ : হে প্রভু! যে বিষয়ে আমার জ্ঞান নেই সে বিষয়ে চাওয়া থেকে তোমার কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করছি। তুমি যদি আমাকে ক্ষমা না করো, দয়া না করো তাহলে আমি ক্ষতিগ্রস্তদের অন্তরর্ভূক্ত হয়ে যাবো।

উৎস : হজরত নুহ আলাইহিস সালামের ছেলে যখন তাঁর অবাধ্য হয়ে প্লাবনের সময় নৌকায় আরোহন করেনি। প্লাবনের ঢেউয় যখন তাকে ডুবিয়ে দিলো। তখন নুহ আলাইহিস সালাম আল্লাহকে বললেন, হে আল্লাহ! আমার পুত্রতো আমার পরিবারভূক্ত। তখন আল্লাহ বলেন, ‘নুহ যে তোমার কথা শোনে না সে তোমার পরিবারভূক্ত নয়। তখন নুহ আলাইহিস সালাম নিজের ভুল বুঝতে পেরে উক্ত দোয়ার মাধ্যমে ক্ষমা চেয়েছিলেন।
যা আমাদের জন্য শিক্ষা। অতএব আল্লাহ তাআলা উম্মতে মুসলিমাকে সব অবৈধ চাওয়া-পাওয়ার পাপ থেকে হিফাজত করুন। আমিন।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন