সোনার গহনা আসল কিনা তা বোঝার উপায় জেনে নিন

সামনেই ধনতেরস অনেকেই এই দিনটিকে সোনা কেনার জন্য শুভ মনে করেন এই দিন অনেকেই সোনার গহনা কিনে থাকেন তবে আপনি যে সোনার গহনা কিনছেন তা আসল তো ঘরোয়া উপায়ে আসল সোনা চেনার উপায় জানিয়েছে ভারতীয় গনমাধ্যম আনন্দ বাজার। আনন্দবাজার পত্রিকার অবলম্বনে বিডি সংসার এর পাঠকদের জন্য থাকছে এই টিপস।

আপনারা সবাই জানেন আসল সণা ২৪ ক্যারেতের হয়। তবে সেই সোনা দিয়ে গহনা তৈরি করা যায় না। কারন ওই সোনা এতই নরম যে গহনা তৈরি করা যায় না। গহনা তৈরি করার জন্য ২২ ক্যারেটের সোনার ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই সোনায় ৯১.৬৬% খাটি সোনা থাকে।

এক এক ক্যারেটের হলমার্ক এক এক রকম হয়ে থাকে। ২২ ক্যারেটে যে সংখ্যা থাকে তা হল ৯১৬, ২১ ক্যারেটে ৮৭৫, ১৮ ক্যারেটে থাকে ৭৫০।

সোনার গহনায় যদি লোহা মিশ্রিত থাকে তবে তা চুম্বকে টেনে নেবে। আপনার সোনায় লোহা মিশ্রিত আছে কি না, তা চুম্বক ব্যবহার করে পরীক্ষা করে নিন।

বাজারে কিছু রাসায়নিক পাওয়া যায় যেগুলো ব্যাবহার করে সোনার গুণগত মান যাচাই করা হয়। ওই রাসায়নিক খাঁটি সোনার সংস্পর্শে এলে কোনও রকম বিক্রিয়া হয় না। কিন্তু বিশুদ্ধ না হলেই বিক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে।

এবার আসি একটি ঘরোয়া পদ্ধতিতে, এই জন্য প্রয়োজন হবে একটি চিনা মাটির প্লেট। এই প্লেটের মধ্যে আপনার গহনা ঘষুন, যদি থালার উপর সোনালি রঙ পড়ে তাহলে বুঝবেন এটা আসল। আর যদি কালো দাগ পড়ে তাহলে বুঝবেন গহনা নকল।

ঘামের সংস্পর্শে এলেও আসল সোনাতে কখনও ঘামের গন্ধ ধরে না। যদি ঘামের গন্ধ ধরে তা হলে বুঝতে হবে কিছু গড়বড় আছে সেই সোনায়।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন