গ্যাস সিলিন্ডার থেকে দুর্ঘটনা এড়াতে করণীয়

স্বাগতম আজকের সম্পূর্ণা ২৪  এর টিপস সেকশনে। এই সেকশনে দৈনন্দিন কাজ সহজ করে দেয় এমন অনেক টিপস সেয়ার করা হয়ে থাকে। আজও তেমন একটি টিপস নিয়ে হাজির হয়েছি। আসা করি ভালো লাগবে আপনাদের ।

আপনার বাড়িকে সুরক্ষিত করার জন্য কী কী করণীয়? জানালায় মজবুত লোহার গ্রিল লাগানো, দরজায় ভালো শক্তপোক্ত তালার ব্যবহার করা, নিরাপত্তা নিশ্ছিদ্র করতে বাড়ির একাধিক জায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো- এ সবই ভাবছেন হয়তো! কিন্তু তাতেও কিছু খামতি থেকে গেল কি?

হ্যাঁ, শর্ট সার্কিটের ফলে একাধিক অগ্নিকাণ্ড ঘটে। তাই বাড়ির বৈদ্যুতিক সংযোগ বা তারের লাইনগুলির নিয়মিত দেখভাল করা বা প্রয়োজনে পরিবর্তনের কথা বলবেন তো! না, তাতেও কিন্তু আপনার বাড়ি সম্পূর্ণ সুরক্ষিত হলো না। কারণ, এখনো পর্যন্ত আপনার রান্নাঘরের সুরক্ষার দিকটিই তো বলা হয়নি। রান্নাঘরে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার থেকেও যে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে, তা ভুলে গেলে চলবে না।

গ্যাস সিলিন্ডার থেকে দুর্ঘটনা এড়াতে কয়েকটা জরুরি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। যেমন, গ্যাসের নব বন্ধ হয়েছে কিনা, গ্যাস সিলিন্ডারের পাইপে কোথাও ফাটা বা ছিদ্র আছে কিনা ইত্যাদি। আসুন এবার জেনে নেওয়া যাক, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ বা গ্যাস সিলিন্ডার থেকে দুর্ঘটনা এড়াতে কী কী করণীয়…

কী কী উপায়ে এড়ানো যায় বিস্ফোরণ:

• গ্যাস বন্ধ করে বেরনোর আগে দেখে নিন গ্যাসের পাইপ যেন কোনও ভাবে গরম বার্নারের গায়ে লেগে না থাকে।

• সিলিন্ডার গরম হতে পারে এমন কোনো কাজ করবেন না। অনেকেই গ্যাসের লাইটার বা দেশলাই ব্যবহারের পর তা রেখে দেন সিলিন্ডারের উপরেই। এমনটা করা একেবারেই উচিত নয়। এই দু’টি জিনিসের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখুন। দুর্ঘটনা যে কোনো সময় ঘটতে পারে।
আরো পড়ুন: শিশু কি কার্টুনে আসক্ত?

• পাইপ পরিষ্কার রাখতে অনেকেই গ্যাসের পাইপের গায়ে কোনো কাপড় বা প্লাস্টিক দিয়ে মুড়িয়ে রাখেন। এমনটা করা একেবারেই উচিত নয়। কারণ, এমন করলে পাইপ থেকে গ্যাস লিক হলেও তা ধরা পড়বে না। একই পাইপ বছরের পর বছর ব্যবহার না করে প্রতি দুই থেকে তিন বছর অন্তর তা বদলে ফালা জরুরি।

• অনেকেই পাইপ পরিষ্কার করতে সাবান ব্যবহার করেন। এটা মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে। গ্যাসের পাইপ পরিষ্কার করতে শুকনো কাপড় ব্যবহার করুন। খুব নোংরা হলে হালকা করে জলে ভিজিয়ে নিন কাপড়। সেই কাপড়েই পরিষ্কার করুন গ্যাসের পাইপ।

• গ্যাসের পাইপটির গায়ে বা সিলিন্ডারে ‘আইএসআই’ চিহ্ন আছে কিনা তা দেখে নিন। না থাকলে সেই সিলিন্ডার বা পাইপ অবিলম্বে পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাকে ফেরত দিন।

• সেফটি ক্যাপ ব্যবহার করুন। রান্নাঘর থেকে বেরনোর পরেই সিলিন্ডারের মুখ ঢেকে রাখুন সেফটি ক্যাপে।

• রান্নাঘরে ঢুকেই গ্যাসের গন্ধ পেলে তখনই বেরিয়ে আসুন রান্নাঘর থেকে। ওই অবস্থায় কোনো সুইচ বোর্ড বা বৈদ্যুতিন সরঞ্জাম চালু করবেন না। রান্নার গ্যাস বাতাসের চেয়ে ভারি। ফলে গ্যাস লিক করলেও তা মেঝের কাছাকাছি ঘোরাফেরা করে। তাই কাপড়, তোয়ালে বা হাতপাখা দিয়ে হাওয়া করে গ্যাস রান্নাঘরের বাইরে বের করে দেওয়ার চেষ্টা করতে পারেন। গ্যাস বেরিয়ে যাচ্ছে বুঝলে দ্রুত খবর দিন পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার হেল্প লাইন নম্বরে।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন