মৃত্যুর পর আমাদের শরীরের কি ধরনের পরিবর্তন সাধিত হয়?

খুব গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা নিজে পড়ুন এবং অন্য কে পড়ার জন্য উৎসাহিত করুন। নিজের মৃত দেহ সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জেনে নেইঃ

মৃত্যুর পর আমাদের শরীরের কি ধরনের পরিবর্তন সাধিত হয়?
=তিন দিন পর নখ পড়ে যেতে শুরু করে ।
=চার দিন পর চুল ক্ষয় হওয়া শুরু করে ।
=পাঁচদিন পর মস্তিষ্ক গলে যেতে শুরু করে ।
=ছয়দিন পর পাকস্থলি গলে মুখ দিয়ে এবং গোপন অংগ দিয়ে বের হতে থাকে ।
=ষাট দিন পর হাড় ছাড়া কিছুই থাকেনা ।

এবার একটু ভাবুনতো, একটু চিন্তা করুন মনোযোগ দিয়ে …
যদি এই মুহুর্তে আমি বা আপনি মারা যাই তাহলে উপরোক্ত ঘটনা ঘটা শুরু হবে আমি অথবা
আপনার দেহের আপনার কিংবা আমার কোন অস্তিত্ব থাকবেনা অহংকার করার জন্য।
সাজার জন্য অথবা পরিপাটি হওয়ার জন্য।
অপরদিকে, আমরা এরকমও দেখতে পাই যে, যারা আল্লাহর প্রিয় বান্দা তাদের লাশ শত শত বছর পরও অক্ষত থেকে যায়।
আল্লাহ বলেছেন,

‘যারা আল্লাহর পথে নিহত হয় তাদের তোমরা মৃত বলোনা বরং তারা জীবিত কিন্তু তোমরা বুঝনা। (সূরা বাকারা ১৫৪)
=তাহলে কি জন্য কিংবা কোন বিষয়ে আমরা অহংকার করব?
=কি কারনে আমরা আল্লাহর অবাধ্য হব?
=কোন অজুহাতে আমরা নামাজ ছেড়ে দেব?
=কি কারনে আমরা নিশ্চিত মৃত্যু আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে জেনেও গাফলতির মধ্যে সময় কাটাব?

আল্লাহ রাব্বুল আলামিন বলেছেন, “মিনহা খালাক নাকুম ওয়াফিহা নুয়িদুকুম ওয়ামিনহা নুখরিজুকুম তা রাতান উখরা।”
অর্থাৎ ,”মাটি দিয়ে আমি সৃষ্টি করেছি,
এই মাটিতেই আবার ফিরিয়ে দেব এই মাটি থেকেই আবার আমি তুলে আনব। (সূরা ত্বাহা :২০ :৫৫)
সূরা আম্বিয়ার ১ নং আয়াতে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন আরো বলেন,
“ইকতারা বালিন্নাছি হিসাবুহুম ওয়াহুম ফি গাফলাতিম মু’ রিদুন।”

অর্থাৎ, “মানুষের সামনে আজ হিসাবের দিন উপস্থিত আর মানুষ আজ গাফিলতির মধ্যে নিমজ্জিত। (সূরা আম্বিয়া : ১)
আল্লাহ রাব্বুল আলামিন আরো বলেন, “প্রত্যেক প্রাণিকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহন করতে হবে। (আল কোরআন)
তাই আসুন, সব ধরনের অহংকার পরিত্যাগ করে আমরা সবাই মৃত্যুর জন্য প্রস্তুতি গ্রহন করি।
নিজে জাহান্নামের আগুন থেকে বাঁচি এবং আমাদের পরিবার পরিজনকে জাহান্নামের আগুন থেকে বাঁচাই।।
আল্লাহ রাব্বুল আলামিন সবাইকে সেই তওফিক দান করুন এবং জাহান্নামের আগুন থেকে আমাদের সবাইকে রক্ষা করুন আমিন।
শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দিন.!

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন