চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করার জরুরি কিছু বিধান !

আজকাল চেয়ারে বসে নামাজ পড়ার প্রবণতা খুব বেশি দেখা যাচ্ছে। কিছু লোক আরামের জন্য চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করে। কিন্তু শুধু আরামের জন্য বা মামুলি কষ্টের বাহানায় চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করা জায়েয নাই। এমন ব্যক্তির পক্ষে অবশ্যই দাঁড়িয়ে যথা নিয়মে নামাজ আদায় করা ফরজ।

যে ব্যক্তি জমিনের উপর বসে নামাজ আদায় করতে সক্ষম তার জন্য শুধু এই বাহানায় চেয়ারে বসে নামাজ পড়া যাবে না যে সে দাঁড়িয়ে নামাজ পড়তে বা রুকু-সিজদা করতে অক্ষম। বরং শরীয়ত এমন ব্যক্তিকে বসে নামাজ পড়ার নির্দেশ দিয়েছে। শুধু ঐ ব্যক্তি চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করবে যে জমিনে বসেও নামাজ পড়তে অক্ষম। এক্ষেত্রে অবশ্যই জানতে হবে-

১. যে ব্যক্তি মাজুর নয়, অর্থাৎ দাঁড়াতে পারে এবং রুকু-সিজদা করতে সক্ষম এমন ব্যক্তির জন্য চেয়ারে বসে নামাজ পড়া জায়েয নেই। এই ব্যক্তি চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করলে তা আদায় হবে না।

২. এমন ব্যক্তি যে স্বাভাবিকভাবে রুকু-সিজদা করতে অক্ষম, কিন্তু জমিনের উপর বসে ইশারায় নামাজ আদায় করতে পারে তার জন্য চেয়ারে বসে নামাজ পড়া মাকরুহ। এমন ব্যক্তি জমিনে বসে ইশারার মাধ্যমে রুকু-সিজদা করবে।

৩. যে ব্যক্তি দাঁড়িয়ে নামাজ পড়তে সক্ষম, তবে রুকু-সিজদা করতে পারে না। অবশ্য জমিনে বসে ইশারায় নামাজ পড়তে পারে এমন ব্যক্তির জন্যও চেয়ারে বসে নামাজ পড়া মাকরুহ। এই ব্যক্তি তার সামর্থ অনুযায়ী দাঁড়িয়ে নামাজ শুরু করবে এরপর বাকি নামাজ বসে আদায় করবে।

৪. এমন ব্যক্তি যে জমিনের উপর বসে নামাজ পড়তে অক্ষম, অর্থাৎ সে মোটেও জমিনে বসে নামাজ আদায় করতে পারে না, শুধু এমন ব্যক্তির জন্য শরীয়ত চেয়ারে বসে নামাজ পড়ার অনুমতি প্রদান করেছে। তবে এমন ব্যক্তি চেয়ারে বসে শুধু ইশারার মাধ্যমে নামাজ আদায় করবে; সামনে কোনো টেবিল বা উঁচু তক্তা রেখে সেখানে রুকু-সিজদা করবে না।

নামাজ আদায় করতে হয় বিনয়ের সাথে, বিগলিত চিত্তে। যা দাঁড়িয়ে নামাজ পড়া অথবা ওজরের সময় বসে নামাজ পড়ার মধ্যে পাওয়া যায়। সুতরাং মসজিদগুলোতে ঢালাওভাবে চেয়ারে বসে নামাজ পড়ার সংস্কৃতি পরিত্যাগ করতে হবে। আল্লাহ আমাদের সবাইকে সহিভাবে দ্বীনকে জানার ও তদানুযায়ী আমল করার তৌফিক দান করুন। আমীন।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন