ডাল রান্নার হরেক রকমের রেসিপি

আপনাদের জন্য এখন দেওয়া হচ্ছে একটি অনেক মজার খাবারের রেসিপিগুচ্ছ। এটি হলো হরেক রকমের ডাল বিভিন্নভাবে রান্নার রেসিপি। দেখে নিন ডাল রান্নার ১১টি রেসিপি। আশা করছি ভালো লাগবে আপনাদের।

টমেটো ডাল

উপকরণ:

ডাল ১০০ গ্রাম

টমেটো কুচি ৪ টা

পিঁয়াজ কুচি ২ টা

রসুন ৪ কোয়া

শুকনা মরিচ ৩ টা

মরিচ গুঁড়া ১/৪ চা চামচ

লবণ ১ চা চামচ

আস্ত জিরা ১/৪ চা চামচ

আদা-রসুন বাটা ১ চা চামচ

তেল ৩ টেবিল চামচ

প্রণালী:
প্রথমে চুলাতে ডাল ২ কাপ পানি, টমেটো কুচি, আদা-রসুন বাটা মরিচ গুঁড়া ও লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। ঘনত্ত বেশি মনে হলে পরিমাণ মত পানি মিশিয়ে ঘুটনি দিয়ে ঘুটে নিন।

এবার কড়াই-এ তেল দিয়ে গরম হলে শুকনা মরিচ ভাজা হলে আস্ত জিরা ও রসুন কুচি, রসুন থেকে ঘ্রান বের হলে পিঁয়াজ কুচি দিন। পিঁয়াজ লাল হয়ে এলে ডাল দিন ফুটে উঠার পর নামিয়ে পরিবেশন করুন।

মাশকলাই এর ডালে পালং

উপকরণ:
পালং শাক ২৫০ গ্রাম
মাশকলাই ডাল ১০০ গ্রাম
রসুন বড় ৫-৬ কোয়া
আদা ১ ইঞ্চি টুকরা

লবণ স্বাদমত
হলুদ ১/২ চা চামচ
কাঁচা মরিচ ৩-৪ টা
পেয়াজ কুচি বড় দুই টা
তেল ৩ টেবিল চামচ

প্রণালী:
প্রথমে ডাল ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর ডাল ও পালং শাক হলুদ ও লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে নিন (ওভার কুক বা ঢাকনা দিয়ে রান্না করলে শাকের সবুজ ভাবটা থাকে না)। রসুন কোয়া ও আদা আগুনে ঝলসে নিয়ে পরিষ্কার করে বেটে নিন। (এইটাই শাকের আসল স্বাদ নিয়ে আসবে)

এরপর প্যানে তেল দিয়ে গরম হলে রসুন কুচি দিয়ে লাল হলে পিঁয়াজ ও কাঁচা মরিচ দিয়ে নাড়ুন। পিঁয়াজ ভাজা হয়ে নরম হয়ে এলে পুড়িয়ে রাখা আদা-রসুন বাটা দিয়ে নাড়ুন। এরপর সেদ্ধ শাক ডাল দিয়ে নাড়ুন। তেল ভালো মত মিশে গেলে লবণ চেক করে লাগলে দিন না লাগলে ওকে বলে গরম ভাত বা রুটির সাথে পরিবেশন করুন।

ডিম ডালের চচ্চড়ি

উপকরণ:
মসুর ডাল ১ কাপ (ধুয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে আধা ঘন্টা)
ডিম ৩টি (একটু লবণ দিয়ে ভেজে পছন্দমত টুকরো করে নিতে হবে)
কাঁচা মরিচ ৪/৫ টি
পিঁয়াজ কুচি ১ কাপ
আদা ও রসুন বাটা ১ টে চামচ
ধনে পাতা স্বাদমত
হলুদ গুড়ো ১ টে চামচের একটু কম
মরিচ গুড়ো হাফ চা চামচ
সাদা সরিষার গুড়ো হাফ চা চামচ
তেজপাতা ১ টি
তেল ৩ টে চামচ
লবণ স্বাদমত
ভাজা জিরার গুড়ো হাফ চা চামচ (ঐচ্ছিক)

প্রণালী:
প্রথমে প্যানে তেল গরম করে পিঁয়াজ কুচি দিয়ে সোনালি করে ভেজে নিন। এরপর আদা-রসুন বাটা দিয়ে কষাতে হবে। সব গুড়ো মশলা ও তেজপাতা দিয়ে একটু পানি দিয়ে কষান।

এবার ডাল দিয়ে মশলা ভাল করে কষিয়ে সামান্য পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ডাল সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। ডিমের টুকরা কাঁচামরিচ চিড়ে ধনে পাতা কুচি আর ভাজা জিরার গুড়ো দিয়ে জ্বাল কমিয়ে মাখা মাখা হলে নামিয়ে গরম ভাত রুটি বা পরটার সাথে পরিবেশন করুন।

ভিন্ন স্বাদের বুটের ডাল

যা লাগবে:
বুটের ডাল ১ কাপ
পাঁচফোড়ন গুঁড়ো ১ চা চামচ
আদা ছেঁচা ১ টেবিল চামচ
হলুদ গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ
মরিচ গুঁড়ো হাফ চা চামচ
ধনিয়া গুঁড়ো হাফ চা চামচ
লবণ স্বাদমত

ফোড়নের জন্য যা লাগবে:
কালোজিরা ১ চা চামচ

কাঁচামরিচ ৭ -৮ টি অল্প চিরে নেয়া
তেল ২ টেবল চামচ

প্রনালি:

-বুটের ডাল ধুয়ে নিয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন কমপক্ষে ৩ ঘন্টা।

-এবার হাঁড়িতে ডালের সাথে উপরের সব উপকরণ মিশিয়ে নিন, সাথে দিন ৩ কাপ গরম পানি।

-হাঁড়িটি ঢাকা দিয়ে অল্প আঁচে রান্না করুন ১ ঘন্টা। ডালটা যখন সেদ্ধ হয়ে যাবে আর অল্প ঝোল ঝোল থাকবে বুঝবেন এটা ফোড়ন এর জন্য রেডি।

-বেশি ঝোল শুকানো যাবে না নাহলে ঠান্ডা হলে ডাল জমে যাবে

-প্যানে তেল দিয়ে তা গরম হলে এতে কালোজিরা দিয়ে দিন। এর সাথে দিন কাঁচামরিচ। অল্প কিছুক্ষণে এই ফোড়ন তৈরী হয়ে যাবে, বেশিক্ষণ চড়া আঁচে রাখবেন না, তাতে কালোজিরা পুড়ে তেতো হয়ে যেতে পারে।

-এবার রান্না করা ডাল এ ফোড়ন দিয়ে ডাল এর সাথে ভালোভাবে মিশিয়ে দিন -এবার ডালের উপরে অল্প কিছু পেঁয়াজ বেরেস্তা ছিটিয়ে দিন, ব্যাস ডাল পরিবেশন এর জন্য তৈরী।

রুটি , পরোটা কিংবা সাদা ভাতের সাথে দারুণ জমে এই বুটের ডাল। চাইলে ডাল রান্নার সময় কিছু টমেটো টুকরো করে দিতে পারেন।

সজনে ডালের চচ্চড়ি

উপকরণ:
সজনে ডাঁটাঃ ২০০ গ্রাম
মসুর ডালঃ ২৫০ গ্রাম
পেঁয়াজ কুচিঃ ১ কাপ
কাঁচামরিচ কুচিঃ ৫ টি
হলুদ গুঁড়াঃ ১ চা চামচ
আদা বাটাঃ ১ চা চামচ
রসুন বাটাঃ ১/২ চা চামচ
লবণঃ স্বাদমতো
তেলঃ পরিমাণমতো

প্রণালী:
প্রথমেই ডাল ধুয়ে ভিজিয়ে রাখুন।
সসপেনে তেল গরম করে পেঁয়াজ ভেজে হলুদ গুঁড়া , আদাবাটা, রসুন বাটা লবণ ভুনে ডাল দিয়ে নেড়ে ভুনে নিন।
এবার ১ গ্লাস পানি দিয়ে ডাল ঢেকে সেদ্ধ করুন।
ডাল অর্ধেক সেদ্ধ হলে সজনে ডাটা দিয়ে ১০ মিনিট রান্না করুন।
ডাল শুকিয়ে এলে কাঁচামরিচ দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ছোলার ডাল উইথ চিকেন

উপকরণ :
ছোলার ডাল ১ কেজি,
মাংস (হাড়সহ) ২ কেজি,
আদাবাটা ১ টেবিল চামচ,
রসুনবাটা দেড় টেবিল চামচ,
সাদা সরিষাবাটা ১ টেবিল চামচ,
নারিকেল সর্ষে পেস্ট ২ টেবিল চামচ,
পেঁয়াজবাটা ১ কাপ,
পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ,
জিরা গুরো ১ টেবিল চামচ,
ধনে গুরো ১ টেবিল চামচ,
হলুদ গুরো ১ টেবিল চামচ,
মরিচ গুরো ২ টেবিল চামচ,
গরমমসলা পরিমাণমতো,
সয়াবিন তেল ১ কাপ এবং লবণ,
কাঁচা লংকা ও টমেটো পরিমাণমতো,
চিনি ১ টেবিল চামচ ।

প্রণালি :
ডাল আধ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ধুয়ে নিতে হবে। মাংস হাড়সহ ধুয়ে নিতে হবে। সসপ্যানে তেল দিয়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভাজতে হবে। একে একে সব মসলা দিয়ে তারপর মাংস ঢেলে ভাজতে হবে। মাংস ভালো করে কষানো হলে এবং সেদ্ধ হলে তাপ একটু বাড়িয়ে দিতে হবে। আরেকটু কষিয়ে গরম জল দিয়ে সেদ্ধ করতে হবে। এরপর কাঁচা লংকা দিয়ে আগুনের আঁচ কমিয়ে কিছুক্ষণ রাখতে হবে। নামিয়ে পরোটা বা ভাতের সঙ্গে পরিবেশন।

চিকেন ডালনা

উপকরণ :
চিকেন ৪-৫ টুকরা,
মসুর/বুটের ডাল ১ কাপ,

আদা বাটা ১ চা চামচ,
পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ,
হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ,
তেল ও লবণ পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি :
চিকেন টুকরাগুলো ভালোভাবে ধুয়ে নিন। চুলায় তেল গরম করে পেঁয়াজ গোল্ডেন ব্রাউন করে ভেজে তাতে চিকেন টুকরা ছেড়ে দিন। একে একে আদা বাটা, হলুদ গুঁড়া ও লবণ দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে তাতে ৩ কাপ পানি দিন। পানি গরম হলে তাতে ডাল দিয়ে দিন এবং কিছুক্ষণ রান্না করুন। ঘন হয়ে এলে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ছোলার ডালে মাংস

উপকরণ :
গরুর মাংস ৫০০ গ্রাম,
ছোলার ডাল ২৫০ গ্রাম,
আদা বাটা ২ টেবিল চামচ,
রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ,
জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ,
পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ,
হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ,
কাঁচামরিচ ৫-৬টি,
শুকনা মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ,
লবণ পরিমাণমতো,
তেজপাতা ২-৩টি,
দারুচিনি ২-৩টি,
এলাচ-লবঙ্গ ২-৩টি,
গরম মসলা গুঁড়া ২ চা চামচ,
সয়াবিন তেল ১/৪ কাপ,
ঘি ১ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালী :
প্রথমে একটি কড়াইয়ে সয়াবিন তেল দিয়ে এলাচ, লবঙ্গ, দারুচিনি তেজপাতা ও পেঁয়াজ কুচি একটু লাল করে ভেজে আদা বাটা, রসুন বাটা, জিরা বাটা, হলুদ গুঁড়া, শুকনা মরিচ গুঁড়া, গরম মসলা গুঁড়া ও লবণ দিয়ে মসলা কষিয়ে মাংস দিয়ে আবার একটু কষিয়ে ভিজিয়ে রাখা ডাল দিতে হবে। ডাল ও মাংস একসঙ্গে অল্প আঁচে রান্না করতে হবে। নামানোর আগে ঘি ও কাঁচামরিচ ফালি দিয়ে নামাতে হবে।

ডিম-ডালের ফ্রেন্ডশিপ

উপকরন:
মুসরী ডাল ১ কাপ (অথবা যে কোন ডাল আপনার পছন্দমত)
কোয়েল পাখির ডিম ১২ টি
প্রায় ১ চা চামচ রসুন পেষ্ট
১/২ চামচ আদা পেষ্ট
জিরা পেষ্ট ১/২ চা চামচ
হলুদ গুড়ো ১/২ চা চামচ
মরিচ গুড়ো ১/২ চা চামচ( ইচ্ছামত )
কাঁচা মরিচ কুচি ১ চামচ ( ইচ্ছামত )
পেয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ
লবন পরিমানমত
পুদিনা পাতা কুচি পরিমান মত
ভাজার জন্য তেল

প্রণালী :
ডিম সিদ্ধ করে নিন। মুসরী ডাল ৩/৪ ঘন্টা ভিজিয়ে ভালো করে ধুয়ে পাটায় মোটামুটি মিহি করে বেটে নিন/ব্লেন্ড করে নিন এবার সব উপকরন দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন, এবার মাখানো ডালের পেষ্ট কে ১১টি ভাগে ভাগ করুন এবং ১টি করে ডিম ভিতরে দিয়ে বল বানান/নিজের ইচ্ছামত শেপ দিয়ে ডুবো তেলে লাল করে ভেজে তুলে নিন, সস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

সবজি-ডাল

উপকরণঃ
বুটের ডাল ২ কাপ।
বেগুন ১টি (মোটা করে কাটা)।
ক্যাপসিকাম-কুচি ১টি।
টমেটো ২টি।
মাশরুম ৩-৪টি।
কাঁচামরিচ ২টি।
হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ।
জিরাগুঁড়া চা-চামচের তিনভাগের একভাগ।

পেঁয়াজকুচি ১ চা-চামচ।
আদা মিহিকুচি আধা চা-চামচ।
রসুনকুচি আধা চা-চামচ।
পাঁচফোড়ন ১ চা-চামচ।
দারুচিনি ২ টুকরা।
লবণ স্বাদমতো।
তেল পরিমাণ মতো।

পদ্ধতি:
লবণ, কাঁচামরিচ, আদা, ক্যাপসিকাম-কুচি দিয়ে ডাল সিদ্ধ করতে দিন। কিছুক্ষণ পর হলুদ আর জিরাগুঁড়া দিয়ে আর একটু সিদ্ধ হতে দিন। সবজিগুলো লবণ দিয়ে মাখিয়ে প্যানে তেল দিয়ে হালকা ভেজে নিন। এবার সবজিগুলো তুলে নিন। এই প্যানে আবার সামান্য তেল দিয়ে পেঁয়াজ আর রসুনকুচি ২ মিনিট ভাজুন। তারপর দারুচিনি আর পাঁচফোড়ন দিয়ে আরও কিছুক্ষণ ভেজে গন্ধ বের হলে ডালের মধ্যে দিয়ে দিন। সবজিগুলো দিয়ে আরও কিচ্ছুক্ষণ জ্বাল দিন।

মসুর ডালের চচ্চড়ি

উপকরণ :
মসুর ডাল ১ কাপ,
বেরেস্তার জন্য পেঁয়াজ কুচি সিকি কাপ,
বেরেস্তার জন্য রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ,
আস্ত রসুন কুচি ৮/১০টি,
জিরা বাটা ১ চা চামচ,
কাঁচামরিচ ফালি ৫/৬টি,
আস্ত জিরা আধা চা চামচ,
হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ,
তেল সিকি কাপ,
লবণ পরিমাণমতো।

প্রণালী :
কড়াইতে অল্প তেল দিয়ে পেঁয়াজ ও রসুন কুচির বেরেস্তা তৈরি করে তুলে রেখে ওই তেলে জিরা ফোঁড়ন দিয়ে ওপরের সব মসলাসহ ডাল দিতে হবে। ডাল দিয়ে কিছুক্ষণ বসিয়ে অল্প পানি দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। ডাল মাখা মাখা হবে। ডাল নামানোর আগে বেরেস্তা ওপরে ছড়িয়ে দিতে হবে।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন