চোখের নিচে কালি দূরার উপায়

নারী বা পুরুষ। চোখের নিচে কালো দাগ কম-বেশি সবার রয়েছে। একটু মানসিক চাপ, রাতে ঘুম কম বা হরমোনাল পরিবর্তন কিংবা লাইফস্টাইলে একটু বদল এলেই চোখের নিচে কালি পড়ে যায়। যথা সময়ে এর সমাধান না করলে আরও বেড়ে যেতে পারে। বাজারে বিভিন্ন প্রকার কেমিক্যাল প্রোডাক্ট পাওয়া যায়, কিন্তু এগুলো ব্যবহারে সাময়িক প্রতিকার মিললেও এসবের রয়েছে মারাত্মক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া। বরং প্রাকৃতিক উপায়ে ও কম সময় চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার কিছু টিপস দেখে নেওয়া যাক।
*টমেটো
চোখের নিচের কালো দাগ দূর করার জন্য টমেটো অনেক বেশি কার্যকর। এটি প্রাকৃতিকভাবে কালো দাগ দূর করে ত্বককে করে তুলে নরম ও তুলতুলে। এক চা চামচ টমেটোর রস ও এক চা চামচ লেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে চোখের নিচে দশ মিনিট দিয়ে রাখুন। এরপর ধুয়ে ফেলুন। দিনে অন্তত দু’বার এটি ব্যবহার করুন। সম্ভব হলে লেবু দিয়ে টমেটোর জুস খান। এটি কালো দাগ দূর করতে সহায়তা করে।

*আলু
আলু খোসা ছাড়িয়ে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর সেসব ব্লেন্ড করা আলু একটু তুলায় নিয়ে চোখের নিচে এবং পাতায় ভেজান। এভাবে দশ মিনিট রেখে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে ফেলুন।

*ঠাণ্ডা টি-ব্যাগ
আরেকটি সহজ উপায় হলো ঠাণ্ডা টি-ব্যাগ। যে কোনো ধরণের টি-ব্যাগ হোক, তা কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিয়ে যেখানে, যেখানে কালি সবক্ষেত্রে ওই টি-ব্যাগ ব্যবহার করুন। প্রতিদিন একবার করে করুন, দেখে নিন পরিবর্তন।

*দুধ
ঠাণ্ডা দুধ ত্বক ও চোখের নিচে কালি উভয় ক্ষেত্রে কার্যকর। এই ঠাণ্ডা দুধ একটু তুলোয় নিয়ে আক্রান্ত জায়গাগুলোতে ঘষে নিন কিছুক্ষণ। এরপর শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে, কালো দাগ দূর করে। পাশাপাশি মুখকে করে তুলে আর বেশি কোমল।

*কমলার রস
কমলার রসের সঙ্গে কিছু গ্লিসারিন মিশিয়ে চোখের কালো ছোপ বা দাগের স্থানে ব্যবহার করুন। এতে শুধু চোখের কালো দাগই দূর হবে না, সঙ্গে চোখের উজ্জ্বলতাও প্রাকৃতিকভাবে বাড়বে।

*গোলাপজল
ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য গোলাপজলের ব্যবহার আদিকাল থেকেই রয়েছে। গোলাপজল চোখের নিচের কালো দাগ দূর করতেও সহায়তা করে দ্রুত। প্রতিদিন ঘুমানোর আগে তুলোয় ভিজিয়ে কালো দাগের স্থানে ঘষে নিন। পনেরো মিনিট রেখে সাধারণ পানিতে ধুয়ে ফেলুন। এক মাস ব্যবহারে পাবেন এর দারুণ ফলাফল।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন