খুব মজাদার রেসিপি বাঁটা পিঁয়াজে চিকেন ভুনা…

আজকের সম্পূর্ণা ২৪ রেসিপি আয়োজনে রয়েছে খুব মজাদার রেসিপি বাঁটা পিঁয়াজে চিকেন ভুনা… । সম্পূর্ণা ২৪ আপনাদের কে দেখাবে কি ভাবে তৈরি করবেন দারুন মজার এই রেসিপিটি । খুব সহজে এবং তাড়াতাড়ি এই পদটি তৈরি করা যায়। চলুন জেনে নিই, কী কী উপকরণ লাগবে এই রেসিপিতে এবং কীভাবে তৈরি খুব মজাদার রেসিপি বাঁটা পিঁয়াজে চিকেন ভুনা…

বাঁটা পিঁয়াজে চিকেন ভুনা

স্বাদে ভিন্নতা আনার প্রধান উপায়গুলির একটা হলো মসলাগুলিকে নিয়ে খেলা করা। আর এভাবেই এই আলাদা চিকেন রেসিপির প্রধান মসলা হয়ে গেল পিঁয়াজ; বা আরও সূক্ষ্মভাবে বলতে গেলে পিঁয়াজ বাঁটা বা আনিওন পেস্ট। অনেকেই চিকেন রান্নায় পিঁয়াজ বাঁটা দেন। এই রেসিপিতে সমস্ত বাঁটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে চিকেনকে তার নিজের পানিতেই ভুনে নেওয়া হয়েছে।
চিকেনের রেগুলার সাইজ নেওয়া হয়েছে এখানে – প্রায় দেড় কেজি পরিমাণের মুরগী। মুরগীর টুকরাগুলি পরিষ্কার করে তাতে পিঁয়াজ বাঁটা (একটু বেশী পরিমাণ), আদা-রসুন বাঁটা, মরিচ গুঁড়া, ধনে গুঁড়া, জিরা গুঁড়া, লবণ ও লেবু দিয়ে ঘন্টা-দু’য়েক মেরিনেট করে রাখা হয়েছে।
দুই ঘন্টা পর কড়াইতে মেরিনেট করা মাংস দিয়ে মিডিয়াম আঁচে খুব ভালোমতো ভুনে নেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে সামান্য পানি দেওয়া যেতে পারে, যদিও মেরিনেট করা মাংস থেকেই বের হওয়া পানি মাংসটাকে ভুনতে যথেষ্ট হতে পারে। মাংস ভুনা হয়ে গেলে তা একটি বাটিতে তুলে রাখা হয়েছে। এখন ব্যবহার করবো খাবার তেল (আমরা রাইস ব্র্যান অয়েল ব্যবহার করেছি। আপনি যে কোন খাবার তেল ব্যবহার করতে পারেন)। কড়াইতে তেল গরম হবার পর তাতে বেশ ভালো পরিমাণ পিঁয়াজ কুঁচি দেওয়া হয়েছে। পিঁয়াজ কুঁচি একটু বাদামী বর্ণ ধারণ (প্রায় বেরেস্তার কাছাকাছি রঙ) করলে তাতে গরম মসলার গুঁড়া দেয়া হয়েছে।
এর পর এই পিঁয়াজ ভুনার মধ্যে আগে থেকে ভুনা মুরগীটা দিয়ে খুব ভালোমতো মেশানো হয়েছে। এক্ষেত্রেও চাইলে সামান্য পানি দেওয়া যেতে পারে। মুরগীটা একদম মাখামাখা হয়ে গেলে তাতে সামান্য চিনি ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। আস্ত বা দুই টুকরা করা কাঁচা মরিচ দেওয়া হয়েছে। গার্নিসিং-এর উপরে পুদিনা পাতা কুঁচি দেওয়া হয়েছে। রান্নাটার সুঘ্রাণই বলছিল যে বাঁটা পিঁয়াজে চিকেন ভুনা এখন খাবার জন্যে রেডি। নান বা পরোটা দিয়ে এটা খেতে সেইরকম লাগবে।

দেখুন ভাইরাল বিজ্ঞাপন ভিডিও