জেনে নিন যে ব্যক্তির আমল আল্লাহ তা’য়ালা কখনোই কবুল করেন না !!

মানুষ মহান আল্লাহ তা’য়ালার সন্তুষ্টি লাভের জন্য প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করে থাকেন। শুধু তাই নয়, আল্লাহকে পাওয়ার জন্য ঈমানদার ব্যক্তিগণ ফরজ নামাজের পাশাপাশি সুন্নাত, মুস্তাহাব, নফল নামাজ আদায় করে থাকেন। কিন্তু যারা আল্লাহর নির্দেষিত নামাজ আদায় করে না তাদের কি হবে? মূলত এই শ্রেণীর কোনো আমলই আল্লাহ তাআলার কাছে কবুল করেন না। যার প্রমাণ একটি হাদিস থেকে তুলে ধরা হলো-

ইমাম বুখারি রহমাতুল্লাহি আলাইহি হজরত বুরাইদা রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণনা করেন যে, তিনি বলেন- রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ﻣَﻦْ ﺗَﺮَﻙَ ﺻَﻼﺓَ ﺍﻟْﻌَﺼْﺮِ ﻓَﻘَﺪْ ﺣَﺒِﻂَ ﻋَﻤَﻠُﻪُ অর্থাৎ “যে ব্যক্তি আসরের নামায ত্যাগ করে তার আমল নিষ্ফল হয়ে যায়।” (বুখারি)

“তার আমল নিষ্ফল হয়ে যায়” এর অর্থ হল : তা বাতিল হয়ে যায় এবং তা তার কোনো কাজে আসবে না। এ হাদিস প্রমাণ করে যে, বেনামাজির কোনো আমল আল্লাহ কবুল করেন না এবং বেনামাজি তার আমল দ্বারা কোনোভাবে উপকৃত হবে না। তার কোনো আমল আল্লাহর কাছে উত্তোলন করা হবে না।

কোনো বান্দা যদি তার ভুল বুঝতে পেরে পুনরায় আল্লাহর ফরজ করা ইবাদতগুলো যথাযথ আদায় করে তাহলে আল্লাহ অবশ্যই তা কবুল করবেন। এবং বান্দার পূর্বের আমলগুলোও কাজে আসবে। কারণ রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের হাদিস প্রমাণ করে যে, কোনো বান্দা যদি আকাশ সম গুনাহ নিয়ে আল্লাহ দরবারে ক্ষমাপ্রার্থনা করে আল্লাহ তার প্রতি আকাশসম ক্ষমা নিয়ে এগিয়ে আসে

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন