কর্মক্ষেত্রে পিঠের ব্যথা দূর করার উপায়

বর্তমানে পিঠের ব্যথা বা ব্যাক পেইন খুব সাধারণ সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। কর্মক্ষেত্রে নারী-পুরুষ উভয়ই এই সমস্যায় ভোগেন। আধুনিক যুগে প্রযুক্তির উন্নয়নের সাথে সাথে বদলাচ্ছে মানুষের কাজের ধরণ। এখন কায়িক পরিশ্রমের তুলনায় মানসিক পরিশ্রম হচ্ছে বেশি।

বেশির ভাগ মানুষকে বসে কাজ করতে হয় ঘণ্টার পর ঘণ্টা। আর এতেই সৃষ্টি হচ্ছে পিঠের ব্যথা। সাধারণত একইভাবে এক জায়গায় বসে কাজ করা, কোনো ভারী জিনিস উঠা নামা করা এবং দীর্ঘসময় গাড়ি চালানোর কারণে মূলত পিঠে ব্যথা হয়।

আর আপনি যখনই এ সমস্যায় পড়বেন নিজের সব কাজ বাদ দিয়ে বসে থাকবেন না; বরং সচল থাকুন। সচল থাকলে ব্যথা আর বাড়তে পারবে না। কর্মক্ষেত্রে বা অফিসে পিঠের ব্যথা থেকে দূরে থাকার কিছু উপায় আছে। চলুন জেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো-

– অফিসের চেয়ারে বসার জন্য একটি ছোট বালিশ ব্যবহার করুন। বসার সময় খেয়াল রাখবেন আপনার মেরুদণ্ড যেন সোজা থাকে। গাড়ি চালানোর সময়ও আপনি এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করতে পারেন। এটি আপনাকে সোজা থাকতে সাহায্য করবে।

– চেয়ার টেবিলের কাছাকাছি রাখুন। এতে সুবিধা হচ্ছে, আপনাকে কম্পিউটারের দিকে ঝুঁকে কাজ করতে হবে না।

– কাজ করার সময় আপনার কম্পিউটার এবং মাউস যেন এক সমতলে থাকে।

আপনার মাথা এবং ঘাড় কম্পিউটারের সাথে সমতল থাকতে হবে। যাতে আপনাকে চোখ ঘুরিয়ে দেখতে না হয়।

– আপনার হাতের কব্জি এবং বাহু যেন একই সমতলে থাকে এই ব্যাপারে খেয়াল রাখুন।

– কাজের মধ্যে প্রতি ৩০ মিনিট পর একটু ছোট বিশ্রাম নেওয়ার চেষ্টা করুন। পারলে করিডোর থেকে একটু হেঁটে আসুন অথবা চা খেয়ে আসুন সহকর্মীদের সঙ্গে। এতে একদিকে যেমন আপনার কাজের একঘেয়েমি কাটবে, তেমনি আপনার পিঠ কিছুটা সময়ের জন্য আরাম পাবে।

– নিজেই নিজেকে বলুন ‘সোজা থাকুন’। কী বোর্ডের দিকে তাকানোর জন্য বার বার নিচে তাকানো থেকে বিরত রাখুন।

– কাজ করার সময় পেটের ভিতর থেকে শ্বাস ফেলার চেষ্টা করুন।

– আপনার পায়ের হাঁটু ৯০ ডিগ্রীতে রাখুন। আপনার গোড়লি এবং হাঁটু যখন একদিকে থাকে তখন আপনার মেরুদণ্ড আরাম পায়।

– ভারি কোনো কিছু উঠাতে গেলে আগে হাঁটু ভাজ করে নিন। তাহলে ভারি বস্তুটির চাপ আপনার মেরুদণ্ড ও পেশিতে প্রভাব ফেলবে না।

– আপনার বসার চেয়ারটা যেন মেরুদণ্ড সমর্থন করে। এতে করে আপনার মেরুদণ্ড সোজা থাকে।

– চেয়ারে পায়ের ওপর পা তুলে বসা থেকে বিরত থাকুন।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন