দারুণ স্বাদে গুড়ের রসগোল্লা রেসিপি !!

গুড়ের রসগোল্লার কথা শুনে অবাক লাগছে নিশ্চয়? অবাক হলেও সত্যি যে গুড়ের রসগোল্লা খেতে খুবই মজা। তাছাড়া সহজে ও ঝামেলা ছাড়াই তৈরি করা যায় এই রসগোল্লা। তাহলে আর দেরি না করে ঝটপট দেখেনিন রেসিপিটি। রইলো রেসিপি

উপকরণ
ছানা তৈরিঃ

• দুধঃ ১ লিটার

• লেবুর রসঃ ২ টেবিলচামচ/ ভিনেগার(লেবুর রসে মিষ্টি সফট হয়)

• সুতি /মসলিন নরম কাপড়

দুধ চুলায় দিয়ে ফুটতে শুরু করলেই চুলা বন্ধ করে দিন।

লেবুর রসের সাথে ২ টেবিলচামচ পানি মিশিয়ে অল্প অল্প করে দুধে মিশাতে থাকুন।দুধ ফেটে সবুজ পানি আলাদা হয়ে গেলে সাথে সাথে ছানা কাপড়ে ছেকে ফেলুন।এখন ঠান্ডা পানিতে ছানা ৩বার ধুয়ে নিন যাতে লেবুর টক ভাব দূর হয়ে যায়।
ছানার কাপড়ের পুতলি চেপে চেপে পানি বের করে উচু জায়গাতে ঝুলিয়ে রাখুন ২ঘন্টা। (পানির কলের উপরে রাখলে ভাল হয়)

মিস্টি তৈরি

• ছানাঃ ১কাপের কম (১ লিটার দুধের)

• সুজিঃ ১ চা চামচ

• মিহি গুড়ো চিনিঃ ১চা চামচ

• গোলাপজল ইচ্ছে অনুযায়ী

সিরার জন্য

পানিঃ ৪কাপ

খেজুরের গুড়ঃ ২০০গ্রাম বা ১কাপ

প্লেটে ছানা নিয়ে কিছুসময় হাল্কা বাতাসে মেলে রাখুন।এতে ছানার পানি থাকলে শুকিয়ে যাবে।ছানা হাতের তালু দিয়ে মথে নিন ২মিনিট। এখন সুজি ও চিনিগুড়ো মিশিয়ে আরো ১০ মিনিট এর মত মথতে হবে।ছানা ১০ ভাগ করে নিন।সময় নিয়ে গোল গোল বল বানিয়ে নিন।কোন ফাটা না থাকে যেন বলগুলোতে তবে সিরায় দিলে ফেটে যাবে।
[ছানাতে কোন পানি থাকা যাবেনা তবে মিস্টি শক্ত হবে]

হাড়িতে গুড়ের সঙ্গে পানি দিয়ে চুলায় দিন।ঢাকনা দিবেন না।ফুটে ওঠার পর সিরার ওপর থেকে ময়লা তুলে ফেলুন।সিরা ঘন করা যাবেনা।

এখন সব ছানার বল একবারে সিরায় ছাড়ুন। আঁচ অনেক বাড়িয়ে ঢাকনা আটকিয়ে দিন।১০ মিনিট এভাবে রাখুন।১০ মিনিট পর আচ মাঝারি করে ঢাকনা খুলে আরো ৫ মিনিট রাখুন।চুলা বন্ধ করে সিরাসহ রসগোল্লা একটি বড় বাটিতে ঢালুন ও ঠান্ডা করুন।৫ ঘন্টা পর পরিবেশন করুন।